শাহেদের টর্চার সেলের ছবি ভাইরাল

অনলাইন ডেস্ক

অনলাইন ৯ জুলাই ২০২০, বৃহস্পতিবার, ৬:০৬ | সর্বশেষ আপডেট: ৬:৪৩

উত্তরার ১২ নম্বর সেক্টরের রিজেন্ট গ্রুপের প্রধান কার্যালয়ে ছিল প্রতারক শাহেদের টর্চার সেল। প্রতারণার নানা কৌশলে অর্থ হাতিয়ে নেয়ার পর কেউ তার কাছে টাকা চাইতে গেলে ওই টর্চার সেলে চালানো হতো নির্যাতন। রিজেন্টে অভিযানের পর এমন নানা নির্যাতনের তথ্য বেরিয়ে আসছে। কথা বলতে শুরু করেছেন ভুক্তভোগীরা। শাহেদের নির্যাতনের শিকার লোকজন গণমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলেছেন। এমনই একজন জানান, তার কাছে টাকার জন্য গিয়ে ছিলাম। টাকা চাওয়া মাত্রই তার লোকজন আমার দুই হাত ধরে শাহেদের কক্ষে নিয়ে দরজা বন্ধ করে দেয়। পরে শাহেদ নিজেই আমাকে নির্যাতন করে।
শাহেদ একজনকে নির্যাতন করছেন এমন একটি ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। যদিও ওই ছবিটি কে বা কারা প্রকাশ করেছে তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

Raj

২০২০-০৭-১০ ১৯:৪৪:২২

এতোদিন কোথায় ছিলেন সাংবাদিক বন্ধুরা। এই রকম হাজার হাজার শাহেদ এই দেশে দূর্ণীতির বরপুত্র সেজে লুটতরাজ চালাচ্ছে এদের খোঁজ কখন আসবে?

মোঃ জহিরুল ইসলাম

২০২০-০৭-০৯ ১৯:৪৮:৫৯

বর্বর। ক্রসফায়ার তার উপযুক্ত শাস্তি।

Siddique nazmul chor

২০২০-০৭-১০ ০৬:৪২:৫৬

Cross fire

মো. সাখাওয়াত হোসেন

২০২০-০৭-০৯ ১২:০১:৪৪

এত দিন কোথায় ছিল সাংবাদিক ? এখন খোঁজে পাওয়া যাইতেছেনা এখন তার বিরুদ্ধে রিপোর্ট । যখন জনসমক্ষে আসবে তখন সাংবাদিকরা চুপ করে যাবে ।

Liaquat Ali Khan

২০২০-০৭-১০ ০০:০৯:০৮

এই ছবি গুলো এতদিন কোথায় ছিলো? যারা আজকে এগুলো প্রকাশ করছে তারা এতোদিন কেন করলেন না? এগুলো আগে প্রচার করলে সে এতো প্রতারণা করতে পারতো না...

Shwapohin

২০২০-০৭-০৯ ১০:৩১:৪২

ওর জন্য Just full stop...

shamsul

২০২০-০৭-০৯ ২২:৪৫:১২

I see ample potentiality in him to be placed in one of the apex positions of the republic. He must be a good and competitive pick as usual.

Siddique

২০২০-০৭-০৯ ২১:২৫:১৯

এই লোক আওয়ামীলীগ এর পদ পাওয়ার জন্য মনে হয় এই টেকনিক ব্যাবহার করেছে।

আনোয়ার

২০২০-০৭-০৯ ০৮:১০:৪৮

এই ছবি গুলো এতদিন কোথায় ছিলো? যারা আজকে এগুলো প্রকাশ করছে তারা এতোদিন কেন করলেন না? এগুলো আগে প্রচার করলে সে এতো প্রতারণা করতে পারতো না | সাংবাদিক হলো সমাজের আয়না, তাঁদের আরো অনেক দায়িত্ব শীল হতে হবে |

shiblik

২০২০-০৭-০৯ ২১:০৬:৪৯

Newspapers and social media are becoming a textbook for illegal and unethical activities. Ban all media!

Mohammedmukitulislam

২০২০-০৭-০৯ ০৬:৪৬:৫৯

This is the digital sonarbangla

Amir

২০২০-০৭-০৯ ১৮:৩২:৪৬

তার বিভিন্ন ব্যবসার সরকারি অনুমোদন আনতে কি সে এই একই টেকনিক ব্যবহার করেছে?

Amir

২০২০-০৭-০৯ ১৮:২৬:৩৩

তার বিভিন্ন ব্যবসার সরকারি অনুমোদন আনতে কি সে এই একই টেকনিক ব্যবহার করেছে?

Banglar Mukh

২০২০-০৭-০৯ ১৮:২৫:৩৩

The whole Bangladesh is a torture cell now.

আপনার মতামত দিন

অনলাইন অন্যান্য খবর



অনলাইন সর্বাধিক পঠিত