বিশ্বজুড়ে পঙ্গপালের হামলায় ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে কোটি কোটি মানুষ

মানবজমিন ডেস্ক

বিশ্বজমিন ২৮ জুন ২০২০, রোববার | সর্বশেষ আপডেট: ৭:৪৯

বিশ্বজুড়ে ঘনিভুত হচ্ছে আরেক মহাসংকট। একইসঙ্গে বিশ্বের দুই প্রান্তেই দেখা গেছে পঙ্গপালের উপদ্রব। সুদূর দক্ষিণ অ্যামেরিকা থেকে শুরু করে আফ্রিকা ও এখন এ প্রান্তে এশিয়া মহাদেশেও পঙ্গপালের আক্রমণের খবর পাওয়া যাচ্ছে। ইরান, পাকিস্তানের পর এবার ভারতেও পঙ্গপালের আক্রমণ হয়েছে। গত শনিবার দেশটির রাজধানী নয়া দিলি­ থেকে মাত্র ১৮ কিলোমিটার দূরের শহর গুরুগ্রামে পঙ্গপাল আক্রমণ করে। স্থানীয় প্রশাসন মানুষজনকে উচ্চ শব্দে গান ছেড়ে ও থালাবাসন দিয়ে শব্দ করে পঙ্গপাল দূর করার পরামর্শ দিয়েছে। এটিই গত এক দশকে ভারতের ইতিহাসে পঙ্গপালের সবথেকে ভয়াবহ হামলা। এ নিয়ে আতঙ্কে দিন কাটছে দেশটির কৃষকদের।
তাদের আশঙ্কা, পঙ্গপালের কারণে ফসল বোনার মৌসুমে তারা ক্ষতিগ্রস্থ হবে।
পৃথিবীর অপরপ্রান্তে থাকা আর্জেন্টিনা ও ব্রাজিলেও পঙ্গপালের আক্রমণের খবর পাওয়া গেছে। এ সপ্তাহে দেশদুটি সতর্কতা জারি করেছে পঙ্গপাল নিয়ে। আর্জেন্টিনায় ৯ বর্গকিলোমিটার জুড়ে থাকা পঙ্গপালের বিশাল ঝাক প্রবেশ করেছে। এটি আর্জেন্টিনা থেকে ব্রাজিল হয়ে উরুগুয়ের দিকে যাচ্ছে। এ নিয়ে জরুরি অবস্থা জারি করেছে ব্রাজিলের দুটি প্রদেশ। তবে আবহাওয়া ভালো থাকলে এটি ব্রাজিলে প্রবেশ নাও করতে পারে এমন আশাও রয়েছে সেখানে।
মে মাসের প্রথম দিকে আফ্রিকার পূর্বাঞ্চলে প্রথম পঙ্গপাল হানা দেয়। এটি গত ৭০ বছরের ইতিহাসে মহাদেশটির সবথেকে বড় পঙ্গপালের হানা। কেনিয়া, সোমালিয়া ও ইথিওপিয়ায় ছড়িয়ে পড়ে কোটি কোটি পঙ্গপাল।
মরুভ’মির পঙ্গপাল সবথেকে ভয়াবহ। এটি সবথেকে খারাপ অবস্থায় বিশ্বের ২০ শতাংশ এলাকা দখল করে নিতে পারে। এতে বিপন্ন হতে পারে বিশ্বের ১০ শতাংশ মানুষের জীবন। এক বর্গ মাইলের তিন ভাগের এক ভাগ আকারের একটি পঙ্গপাল প্রতিদিন ৩৫ হাজার মানুষের খাবার খায়।
এদিকে পৃথিবীকে মোকাবেলা করতে হচ্ছে প্রকৃতির দেয়া আরেক মহামারিকে। কোভিড-১৯ মহামারির কারণে পঙ্গপালের উৎপাত সামলানো আরো কঠিন হয়ে যাচ্ছে। বিশ্বের দেশগুলো এখন সীমান্ত বন্ধ করে আছে। ফলে বিস্তর কোনো অঞ্চলজুড়ে একইসঙ্গে এর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া যাচ্ছে না। প্রতিদিন এদের ঝাক ১৯৫ কিলোমিটার দূরত্ব অতিক্রম করতে পারে। ফলে কোনো এলাকায় এরা হানা দিলে দ্রুতই পরিস্থিতির অবনতি ঘটতে থাকে।

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

মোঃআরিফ হোসাইন।

২০২০-০৬-২৮ ০২:৩৬:৫৫

আল্লাহ্'র মাইর দুনিয়ার বাহির! আল্লাহ্ মাফ করুন আমাদেরকে । প্লিজ।

আপনার মতামত দিন

বিশ্বজমিন অন্যান্য খবর



বিশ্বজমিন সর্বাধিক পঠিত