‘গ্রামাঞ্চলে মাত্র ১৬ শতাংশ শিক্ষার্থী টেলিভিশন ক্লাসে যুক্ত’

স্টাফ রিপোর্টার

শিক্ষাঙ্গন ২৭ জুন ২০২০, শনিবার | সর্বশেষ আপডেট: ৭:০৮

করোনার প্রকোপে বন্ধ সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। প্রাথমিক ও মাধ্যমিক স্তরের শিক্ষার্থীদের ক্ষতি পুষিয়ে নিতে সংসদ টেলিভিশনের মাধ্যমে পাঠদান অব্যাহত রাখা হয়েছে। তবে গ্রামাঞ্চলের মাত্র ১৬ শতাংশ শিক্ষার্থী এই পাঠদান কর্মসূচিতে অংশ নিচ্ছে। ব্র্যাক ইন্সটিটিউট অব গভর্ন্যান্স অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট (বিআইজিডি) এক গবেষণার আলোকে এ তথ্য দিয়েছে। আজ বুধবার একটি ওয়েবিনারে গবেষণার এই ফলাফল তুলে ধরা হয়।

গবেষণা প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, করোনাকালে মাত্র ১৬ শতাংশ শিক্ষার্থী টেলিভিশনে ‘ঘরে বসে শিখি’ ও ‘আমার ঘরে আমার স্কুল’ অনুষ্ঠান দু’টি দেখছেন। আর মাত্র এক শতাংশ শিক্ষার্থী অনলাইন ক্লাসে অংশগ্রহণ করেছেন। টিভি ক্লাসে অংশ নেয়া বেশিরভাগ শিক্ষার্থী টেলিভিশনে ক্লাস অনুসরণ করাকে বেশ কঠিন বলে মনে করছেন।


ওয়েবিনারে অধ্যাপক ড. নিয়াজ আসাদুল্লাহ গবেষণায় প্রাপ্ত ফল উপস্থাপন করেন। এরপর প্যানেল আলোচনা ও উন্মুক্ত প্রশ্নোত্তর পর্বে অংশগ্রহণ করেন আলোচকরা। ক্যাম্পেইন ফর পপুলার এডুকেশনের নির্বাহী পরিচালক রাশেদা কে চৌধুরী, মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ড. সৈয়দ মো. গোলাম ফারুক, ব্র্যাক শিক্ষা কার্যক্রমের পরিচালক ড. শফিকুল ইসলাম, ব্র্যাক ইন্সটিটিউট অব এডুকেশনাল ডেভেলপমেন্টের (বিআইইডি) সহকারী অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ মাহবুব মোর্শেদ প্যানেল আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন। ওয়েবিনারটি সঞ্চালনা করেন বিআইজিডির নির্বাহী পরিচালক ড. ইমরান মতিন।

প্রতিবেদনে আরো বলা হয়েছে, আগে যেখানে গ্রামের শিক্ষার্থীরা দিনে স্কুল, কোচিং ও বাড়িতে নিজেদের পড়ালেখা মিলে ১০ ঘণ্টা ব্যয় করতেন, এখন তারা সেখানে ব্যয় করছেন মাত্র ২ ঘণ্টায়। অর্থাৎ শিক্ষার্থীরা তাদের লেখাপড়ার সময় কমিয়ে দিয়েছে ৮০ শতাংশ।

আপনার মতামত দিন

শিক্ষাঙ্গন অন্যান্য খবর



শিক্ষাঙ্গন সর্বাধিক পঠিত